মেসি ও বার্সার মধ্যে বিচ্ছেদ, কোন ক্লাবে যেতে পারেন এই সুপার স্টার?

 মেসি ও বার্সার মধ্যে বিচ্ছেদ নিয়ে আলোরন।

মেসি, লিওনেল মেসি, লিওনেল,লিও মেসি,মেসি লিও, মাসি

লিওনেল মেসির সাথে শেষ হতে চলেছে বার্সেলোনার এতদিনের সম্পর্ক। মেসি তার ক্লাপকে জানিয়ে দিয়েছেন যে, কিভাবে তাকে ফ্রিরে ছেড়ে দেয়া যায়।

ঘটনার সূত্রপাত অনেক আগে থেকে। কিন্তু এর বিশেষ কারণ ধরা পরে বার্সেলোনাতে নতুত কোচ নিয়োগ দেয়ার পরেই।

বার্সেলোনা কিছুদিন আগে চ্যামিয়ন বায়ার্ন মিউনিকের সাথে ৮-২ গোলের বড় ব্যাবথানে হারার পরেই চলে আসে দলের মধ্যে বিভিন্ণ পরিবর্তন। এর ধারাবহিকতায় প্রথমেই পরিবর্তন করা হয় কোচকে। কোচ এসেই ঝড় তুলেন বার্সাতে। কোচ সাধারনত দলের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনার জন্য দলের অধিনায়ককেই বেচে নেন। এখানেও হয়েছে এমনটা। কিন্তু বাধ সাধে কোচের সাধে অধিনায়ক মেসির। কোচ সরাসরি অধিনায়ককে বলে দেন যে, আমাদের এই ক্লাবে খেলতে হলে প্রথমেই এতোদিন আপনারা যারা অতিরিক্ত বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা পেয়েছেন সে সকল সুযোগ সুবিধা বর্জন করতে হবে। এরপরই শুরু হয় আলোরণ।

মেসির আরো অভিযোগের মধ্যে আসে এর আগেই বার্সেলোনা কয়েকটি ম্যাচে হার ভোক্ষন করে। তখন তাদের ক্লাব বার্সা কমিটি একের পর এক প্লেয়ার খুজতে থাকে এর মধ্যে অনেক অনেক বেশি বেশি মূল্যবানের প্লেয়ার খুজতে থাকে। যার ফলে বার্সার অনেক খরচ বেড়ে যায়। এর ফলে বার্সার অর্থ সংকটেও পরার সম্ভাবনা দেখা দেয়।

এই সকল বিষয় নিয়ে মেসির সাথে বার্সার একটা অর্তকোন্দল দেখা দেয়। এই সকল বিষয় নিয়ে অনেক পুরানো বিষয় একত্রিত হয়ে মেসি এই সিদ্বান্তে উপনিত হয়েছেন বলে জানা যায়।

মেসির পত্রে মেসি বলেছেন যে, তাকে ফ্রিতে ক্লাব ছারতে দেয়া হউক।

মেসি সেই সাথে এরা উল্লেখ করেঝেন যে, এখন আমার এই ক্লাব ছাড়ার সময় হয়ে গেছে।


অপর দিকে বার্সা সভাপতি বলেছেন যে, আমরা আসা করি মেসি তার ক্যারিয়ার বার্সাতেই শেষ করবেন বলে আমরা আসা  রাখি।

৩৩ বছর বয়সি মেসির ক্লোজ আউট মানি হলো ৭০০ মিনিয়ন ইউরো।  লিয়নোল মেসি ছয়বার ডিওনাল জিতেছেন। 

বার্সা ক্লাব মেসিকে রাখার জন্য আরো একবার তাদের বোর্ড মিটিং করতে চায় এবং সেখানে বর্তমান সভাপতির পদত্যাগ করাতে চান।

তবে মেসি তার পদত্যাগের বিষয় অনড় বলে জানা গেছে।

বার্সা সভাপতির পদত্যাগের জন্য এরই মধ্যে পদত্যাগের জন্য সমাবেশ ও আন্দোলন হয়েছে। মেসির বার্সা ছাড়ার জন্য েএকটা শর্ত দেয়া আছে, সেই শর্তে বলা হয়েছে যে, মেসি যদি কখনো বার্সা ছাড়তে চায় তবে সেই ছাড় হবে ফ্রিতে। কিন্তু সেটা ১০ই জুনের মধ্যে জানাতে হবে। যেহেতু এই মৌসুমে অনেক ম্যাচ বাদ হয়েছে সেই ক্ষেত্রে এই শর্ত নাও প্রযোজ্য হতে পারে।



মেসি কোন ক্লাবে যাবে?

মেসি কোন ক্লাবে যাবে সেটা নিয়ে এখন অনেক প্রশ্ন রয়েছে। কেননা এমন একটি প্লেয়ারকে যে কোন দলই আকুল হয়ে বসে থাকে কিন্তু করোনার কারনে এই বিষয়টা এখন হালকা হয়ে গেছ।

তবে মেসি হয়তো ম্যানচেস্টার সিটিতে যেতে পারেন। 


এখন পর্যন্ত অনেক সময়ই এমন ধারনা করা হচ্ছে যে, মেসি হয়তো ম্যানচেস্টারেই যেতে পারেন।



SHARE THIS

Author:

Previous Post
Next Post