Featured Posts

Ad-sense Ad

মুমিনুল হক করোনায় আক্রান্ত

মুমিনুল হক করোনায় আক্রান্ত

 gywgbyj nKI K‡ivbvq AvµvšÍ

 


K‡ivbvq AvµvšÍ n‡q‡Qb evsjv‡`k RvZxq wµ‡KU `‡ji †U÷ AwabvqK gywgbyK nK| Gi Av‡M K‡ivbvq AvµvšÍ n‡q‡Qb gvngy`Djøvn wiqv`|

g½jevi `ycy‡i wewmwei wPwKrmK †`evwkl ‡PŠayix welqwU wbwðZ K‡i‡Qb| d‡j e½eÜz wU-20 Kv‡c GB †Ljqv‡ii †Ljv AwbwðZ n‡q c‡i‡Q| GB †Ljqvi eZ©gv‡b Zvi wbR evmvq AvB‡mv‡jk‡b Av‡Qb|

বিএনপির সমর্থকদের মধ্যে কয়েক দফায় মারামারি। অনেকে আহত

বিএনপির সমর্থকদের মধ্যে কয়েক দফায় মারামারি। অনেকে আহত

 আজ রোজ শনিবার ১২.০৯.২০২০ তারিখে উপনির্বাচরেন মনোনয়ন পত্র জমা দেয়ার সময় কয়েক দফায় হামলা এবং ভাঙ্গচুরের ঘটনা ঘটে।


প্রখমে ঢাকা ৫ আসনের উপনির্বাচনের জন্য দিতে আসা বিএনপির দুইজন এক জন নবী-উল্লাহ নবী এবং সালাউদ্দিন আহমেদের সর্মমথকদের মধ্যে এই সংর্ঘস শুরু হয়।


এই ঘটনা শুরু হবার পরে চারি দিকে ভিতি ছরিয়ে পরে।


বিস্তারিত আসছে...........

মেসি ও বার্সার মধ্যে বিচ্ছেদ, কোন ক্লাবে যেতে পারেন এই সুপার স্টার?

মেসি ও বার্সার মধ্যে বিচ্ছেদ, কোন ক্লাবে যেতে পারেন এই সুপার স্টার?

 মেসি ও বার্সার মধ্যে বিচ্ছেদ নিয়ে আলোরন।

মেসি, লিওনেল মেসি, লিওনেল,লিও মেসি,মেসি লিও, মাসি

লিওনেল মেসির সাথে শেষ হতে চলেছে বার্সেলোনার এতদিনের সম্পর্ক। মেসি তার ক্লাপকে জানিয়ে দিয়েছেন যে, কিভাবে তাকে ফ্রিরে ছেড়ে দেয়া যায়।

ঘটনার সূত্রপাত অনেক আগে থেকে। কিন্তু এর বিশেষ কারণ ধরা পরে বার্সেলোনাতে নতুত কোচ নিয়োগ দেয়ার পরেই।

বার্সেলোনা কিছুদিন আগে চ্যামিয়ন বায়ার্ন মিউনিকের সাথে ৮-২ গোলের বড় ব্যাবথানে হারার পরেই চলে আসে দলের মধ্যে বিভিন্ণ পরিবর্তন। এর ধারাবহিকতায় প্রথমেই পরিবর্তন করা হয় কোচকে। কোচ এসেই ঝড় তুলেন বার্সাতে। কোচ সাধারনত দলের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনার জন্য দলের অধিনায়ককেই বেচে নেন। এখানেও হয়েছে এমনটা। কিন্তু বাধ সাধে কোচের সাধে অধিনায়ক মেসির। কোচ সরাসরি অধিনায়ককে বলে দেন যে, আমাদের এই ক্লাবে খেলতে হলে প্রথমেই এতোদিন আপনারা যারা অতিরিক্ত বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা পেয়েছেন সে সকল সুযোগ সুবিধা বর্জন করতে হবে। এরপরই শুরু হয় আলোরণ।

মেসির আরো অভিযোগের মধ্যে আসে এর আগেই বার্সেলোনা কয়েকটি ম্যাচে হার ভোক্ষন করে। তখন তাদের ক্লাব বার্সা কমিটি একের পর এক প্লেয়ার খুজতে থাকে এর মধ্যে অনেক অনেক বেশি বেশি মূল্যবানের প্লেয়ার খুজতে থাকে। যার ফলে বার্সার অনেক খরচ বেড়ে যায়। এর ফলে বার্সার অর্থ সংকটেও পরার সম্ভাবনা দেখা দেয়।

এই সকল বিষয় নিয়ে মেসির সাথে বার্সার একটা অর্তকোন্দল দেখা দেয়। এই সকল বিষয় নিয়ে অনেক পুরানো বিষয় একত্রিত হয়ে মেসি এই সিদ্বান্তে উপনিত হয়েছেন বলে জানা যায়।

মেসির পত্রে মেসি বলেছেন যে, তাকে ফ্রিতে ক্লাব ছারতে দেয়া হউক।

মেসি সেই সাথে এরা উল্লেখ করেঝেন যে, এখন আমার এই ক্লাব ছাড়ার সময় হয়ে গেছে।


অপর দিকে বার্সা সভাপতি বলেছেন যে, আমরা আসা করি মেসি তার ক্যারিয়ার বার্সাতেই শেষ করবেন বলে আমরা আসা  রাখি।

৩৩ বছর বয়সি মেসির ক্লোজ আউট মানি হলো ৭০০ মিনিয়ন ইউরো।  লিয়নোল মেসি ছয়বার ডিওনাল জিতেছেন। 

বার্সা ক্লাব মেসিকে রাখার জন্য আরো একবার তাদের বোর্ড মিটিং করতে চায় এবং সেখানে বর্তমান সভাপতির পদত্যাগ করাতে চান।

তবে মেসি তার পদত্যাগের বিষয় অনড় বলে জানা গেছে।

বার্সা সভাপতির পদত্যাগের জন্য এরই মধ্যে পদত্যাগের জন্য সমাবেশ ও আন্দোলন হয়েছে। মেসির বার্সা ছাড়ার জন্য েএকটা শর্ত দেয়া আছে, সেই শর্তে বলা হয়েছে যে, মেসি যদি কখনো বার্সা ছাড়তে চায় তবে সেই ছাড় হবে ফ্রিতে। কিন্তু সেটা ১০ই জুনের মধ্যে জানাতে হবে। যেহেতু এই মৌসুমে অনেক ম্যাচ বাদ হয়েছে সেই ক্ষেত্রে এই শর্ত নাও প্রযোজ্য হতে পারে।



মেসি কোন ক্লাবে যাবে?

মেসি কোন ক্লাবে যাবে সেটা নিয়ে এখন অনেক প্রশ্ন রয়েছে। কেননা এমন একটি প্লেয়ারকে যে কোন দলই আকুল হয়ে বসে থাকে কিন্তু করোনার কারনে এই বিষয়টা এখন হালকা হয়ে গেছ।

তবে মেসি হয়তো ম্যানচেস্টার সিটিতে যেতে পারেন। 


এখন পর্যন্ত অনেক সময়ই এমন ধারনা করা হচ্ছে যে, মেসি হয়তো ম্যানচেস্টারেই যেতে পারেন।


পাকিস্তানকে ছাড়ালো বাংলাদেশ

পাকিস্তানকে ছাড়ালো বাংলাদেশ

 পাকিস্তানকে ছাড়ালো বাংলাদেশ। বাংলাদেশ আজ ২২ শে আগস্ট করোনা ভাইরাসের মোট আক্রান্ত এর সংখ্যার দিকদিয়ে পাকিস্তানকে টপকে গেছেন। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের মোট আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দারালো ২,৯২,৬২৫ জন। এর মধ্যে মোট বাংলাদেশের মৃত্যুর সংখ্যা গিয়ে দারালো ৩,৯০৭ জনে। সেই সাথে মোট সুস্থ্য হয়েছে ১,৭৫,৫৬৭ জন।

করোনা ভাইরাস

আজ নতুন করে ৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছ।       


অপর দিকে পাকিস্তানের মোট আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দাড়ালো ২,৯২,১৭৪ জন। এর মধ্যে মোট মৃত্যুর সংখ্যা গিয়ে দারালো ৬,২৩১ জনে। সেই সাথে মোট সুস্থ্য হয়েছে ২,৭৫,৩১৭ জন।

এর মাধ্যমে বোঝা যায়যে, পাকিস্তানের মোট আক্রান্তের মধ্যে অধিক সংখ্যক করোনা রোগি সুস্থ্য হয়ে উঠছে। সেই সাথে বাংলাদেশের চেয়ে পাকিস্তানের মৃতের সংখ্যা বেশি।

অপরদিকে আক্রান্তের দিক থেকে প্রতিদিনই বাংলাদেশ অনেক অনেক বেশি আক্রান্ত বাড়ছে।

বিগত কয়েক দিনের মোট আক্রান্তে সংখ্যা দেখলে দেখা যাবে যে, পাকিস্তানের আক্রানের সংথ্যা দিনে দিনে কমে আসছে।


যেমন বিগত ১০ দিনের তথ্য দেয়া হলোঃ


                                পাকিস্তানঃ                                 বাংলাদেশ

তারিখ                       মোট আক্রান্তের সংখ্যা    মোট মৃত্যু               মোট আক্রান্তের সংখ্যা    মোট মৃত্যু 

১২/০৮/২০২০             ৭৩০                             ১৭                            ২৯৯৫                      ৪২

১৩/০৮/২০২০            ৭৫৩                            ১০                            ২৬১৭                       ৪৪

১৪/০৮/২০২০            ৬২৬                            ১৪                             ২৭৬৬                     ৩৪

১৫/০৮/২০২০            ৭৪৭                            ৯                                ২৬৪৪                       ৩৪

১৬/০৮/২০২০            ৬৭০                            ৬                                ২০২৪                     ৩২

১৭/০৮/২০২০              ৪৯৮                            ৭                                ২৫৯৫                    ৩৭

১৮/০৮/২০২০            ৬১৭                            ১৫                                ৩২০০                   ৪৬

১৯/০৮/২০২০            ৬১৩                            ১১                            ২৭৪৭                        ৪১

২০/০৮/২০২০             ৫১৩                            ৮                            ২৮৬৮                      ৪১

২১/০৮/২০২০            ৬৩০                            ১০                            ২৪০১                        ৩৯

 এই চিত্র দেখলেই বোঝা যায়যে পাকিস্তানের চেয়ে বাংলাদেশের করোনা আক্রান্ত দিনে দিনে অবনতি হচ্ছে।



এই রির্পোট লেখা পর্যন্ত সারাবিশ্বে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২,৩১,৪৯,৫৩৯ জন।

এই রির্পোট লেখা পর্যন্ত সারাবিশ্বে মোট মৃত্যুর সংখ্যা  ৮,০৩,৮০৩ জন।

এই রির্পোট লেখা পর্যন্ত সারাবিশ্বে মোট সুস্থ্যর সংখ্যা ১,৫৭,৩২,৪৬৮ জন।

কোয়েল মল্লিক করোনায় আক্রান্ত

কোয়েল মল্লিক করোনায় আক্রান্ত

কোয়েল মল্লিক করোনায় আক্রান্ত
কোয়েল মল্লিক


টলিউডে করোনার হানা। মারণভাইরাসের থাবা এ বার খোদ মল্লিক পরিবারে। করোনায় আক্রান্ত হলেন অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিক, স্ত্রী দীপা মল্লিক এবং মেয়ে কোয়েল মল্লিক। শুধু তাই নয়, কোয়েলের স্বামী নিসপাল সিংহ রানেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আপাতত গৃহ পর্যবেক্ষণে রয়েছেন তাঁরা। বাড়ি থেকেই চিকিৎসা চলছে তাঁদের। তবে সুস্থ রয়েছে কোয়েল-রানের ছেলে।

শুক্রবার নিজেই টুইট করে এ কথা জানান কোয়েল। তিনি লেখেন, “মা-বাবা আমি এবং রানে করোনায় আক্রান্ত হয়েছি। আপাতত সবাই সেল্ফ কোয়রান্টিনে”। এ দিন নিসপাল বলেন, ‘‘আমারই প্রথম হালকা ঠান্ডা লেগেছিল, তাই টেস্ট করাই। পরে বাকিদেরও টেস্টে পজিটিভ আসে। তবে সম্প্রতি শহরের বাইরে কোথাও যাইনি।’’

Add caption











আমাদের এই সাইটের বাহিরে আপনি আরো বিভিন্ন বিদেশী সংবাদও দেখতে পারবেন এই লিংকে https://xybestbuy.com/global-news/

করোনা পরীক্ষায় আবার পজিটিভ হয়েছেন মাশরাফি

করোনা পরীক্ষায় আবার পজিটিভ হয়েছেন মাশরাফি

করোনা পরীক্ষায় আবার পজিটিভ হয়েছেন মাশরাফি

মাশরফি বিন মুর্তজা
করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে ১৪ দিন হয়ে গেল। এই কয় দিন বাসাতেই চিকিৎসা নিয়েছেন মাশরফি বিন মুর্তজা। কিন্তু এখনো করোনা থেকে মুক্তি পাননি তিনি।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, দ্বিতীয়বার নমুনা পরীক্ষা করেও করোনা পজিটিভ হয়েছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক ও নড়াইল–২ আসনের সাংসদ মাশরাফি। পরে মাশরাফিও  নিশ্চিত করেছেন, তাঁর নমুনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসেনি।

গত ২০ জুন মাশরাফির শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। মাশরাফির পর তাঁর ছোট ভাই মোরসালিন বিন মুর্তজাও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তবে তাঁদের শারীরিক অবস্থা ভালো বলেই জানা গেছে
করোনা পরীক্ষায় আবার পজিটিভ হয়েছেন মাশরাফি


করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে ১৪ দিন হয়ে গেল। এই কয় দিন বাসাতেই চিকিৎসা নিয়েছেন মাশরফি বিন মুর্তজা। কিন্তু এখনো করোনা থেকে মুক্তি পাননি তিনি।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, দ্বিতীয়বার নমুনা পরীক্ষা করেও করোনা পজিটিভ হয়েছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক ও নড়াইল–২ আসনের সাংসদ মাশরাফি। পরে মাশরাফিও প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেছেন, তাঁর নমুনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসেনি।

গত ২০ জুন মাশরাফির শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। মাশরাফির পর তাঁর ছোট ভাই মোরসালিন বিন মুর্তজাও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তবে তাঁদের শারীরিক অবস্থা ভালো বলেই জানা গেছে
ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান আর নেই

ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান আর নেই

ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান আর নেই

ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান আর নেই

ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান


বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে নিজ বাসভবনে তিনি ইন্তেকাল করেন। পারিবারিক সূত্রে এ কথা জানা গেছে।
লতিফুর রহমান স্ত্রী, পুত্র, দুই কন্যাসহ আত্মীয়স্বজন, গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, লতিফুর রহমানের মরদেহ আজ ঢাকায় আনা হবে। গুলশানের আজাদ মসজিদে বাদ এশা তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর রাতেই বনানী কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে।